দাড়ির যত্নে কি তেল লাগাবেন?

0
200

চুলের সুস্বাস্থ্য এবং মুখের সঙ্গে মানানসই হেয়ারস্টাইল নিয়ে কমবেশি সবাই ভাবেন। শুধু নানা রকম হেয়ারস্টাইলই নয়, নানা রকম দাড়ি বা বেয়ার্ডস্টাইলও এখন ফ্যাশনের অঙ্গ।

হলিউড-বলিউডের সেলিব্রেটিরা থেকে শুরু করে খেলার তারকারাও এখন দাড়ির নানা রকম ছাঁট নিয়ে সামনে আসছেন। অনেকেই তাদের পছন্দের তারকাকে অনুসরণ করেন।

কিন্তু শুধু স্টাইল করলেই তো হবে না, স্বাস্থ্য বজায় রাখতে চুলের মতো দাড়িরও যত্নের প্রয়োজন। দাড়িতে তেল দিন। পশ্চিমা দেশে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের বিয়ার্ড অয়েল পাওয়া যায়।

পার্লারে গিয়ে টাকা খরচ না করে ঘরোয়া উপায়ে দাড়ির যত্ন কী ভাবে নেবেন জেনে নিন:

ইউক্যালিপটাস তেল: বাজারে ইউক্যালিপটাস তেল সহজেই কিনতে পারবেন। এই তেল অ্যান্টি-ব্যাকটিরিয়াল এবং অ্যান্টি-ফাঙ্গাল। দাড়ি দ্রুত বড় হতেও সাহায্য করে। ছয় চা চামচ অলিভ অয়েলের সঙ্গে ২-৩ ফোঁটা ইউক্যালিপটাস অয়েল ভাল করে মিশিয়ে নিন। তারপর সেটা দাড়িতে হালকা হাতে মাসাজ করে লাগিয়ে রাখুন ৩০ মিনিট। তারপর ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

নারকেল তেল: বাড়িতে যদি খাঁটি নারকেল তেল পাওয়া যায়, তার বিকল্প নেই। একটা ছোট বোতলে নারকেল তেল ভর্তি করুন। তাতে ১০ ফোঁটা রোজমেরি অয়েল মিশিয়ে রাখুন। রোজ রাতে শোওয়ার সময় দাড়িতে প্রয়োজনমতো লাগিয়ে নিন। পরদিন সকালে ধুয়ে ফেলুন।

টি ট্রি অয়েল: খুব ভাল ময়শ্চারাইজার। গন্ধটাও খুব সুন্দর। দু’ফোঁটা ইউক্যালিপটাস অয়েলের সঙ্গে দু’ফোঁটা টি ট্রি অয়েল মিশিয়ে রাখুন। রোজ স্নানের ১৫ মিনিট আগে ভাল করে দাড়িতে লাগিয়ে রাখুন।

সাইট্রাস অয়েল: ২০ মিলিলিটার আমন্ড অয়েলের সঙ্গে, পাঁচ মিলিলিটার জোজোবা অয়েল মিশিয়ে নিন। তাতে ২-৩ ফোঁটা সাইট্রাস অয়েল ভাল করে মিশিয়ে নিন। দাড়ির জন্য এটাও খুব উপকারী। দিনের যে কোনও সময়ে ২০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। তারপর ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দাড়ির পাশাপাশি ত্বককেও উজ্জ্বল করে এই তেলগুলো।

দাড়ি পরিষ্কারে শ্যাম্পু ব্যবহার করুন। সপ্তাহে ২-৩বার শ্যাম্পু করুন আপনার দাড়িতে। শুধু তাই না, কন্ডিশনারও দিতে পারেন। দাড়ি ধোয়ার পরে অবশ্যই ভালো করে মুছে নিন। দাড়ি নিয়মিত আঁচড়ে নিতেও ভুলবেন না।

ব্যস্ এবার মনমতো দাড়ি রেখে নতুন স্টাইলে চমকে দিন বন্ধুদের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here