close
অপরাধ

তারেক রহমানের একান্ত সচিব রিমান্ডে

Be5Ar6_1547135535

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে রাজধানীর মতিঝিল থেকে ৮ কোটি টাকা উদ্ধারের ঘটনায় অর্থ পাচার ও সন্ত্রাসবিরোধী আইনে করা মামলায় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সহকারী একান্ত সচিব (এপিএস) মিয়া নুরুদ্দিন অপুর ৫ দিনের রিমান্ড মজ্ঞুর করেছে

 

আদালত। গত ৪ জানুয়ারি রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতাল থেকে তাকে গ্রেফতার করেছিল র‌্যাব-১। অপু হাসপাতালটিতে চিকিৎসাধীন ছিলেন। ওই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির পরিদর্শক আশরাফুল ইসলাম আজ অপুকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন।

 

রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, আসামি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ ও দেশকে অস্থিতিশীল করার জন্য সমগ্র কার্যক্রম পরিচালনা করার মূল হোতা ও নিয়ন্ত্রক। তার সহযোগীদের গ্রেপ্তার করাসহ ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটনের জন্য তাকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা প্রয়োজন।

অন্যদিকে অপুর পক্ষে তার আইনজীবী মজিবর রহমান দুলাল রিমান্ডের বিরোধিতা করে জামিনের আবেদন করেন। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর আজাদ রহমান। শুনানি শেষে বিচারক জামিন নাকচ করে অপুকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দেন। সূত্র

 

মতে, নির্বাচনের আগে রাজধানীতে ৮ কোটি টাকা উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় গ্রেপ্তার করা হয় তাকে। গত ২৫শে ডিসেম্বর রাজধানীর মতিঝিল থেকে ৮ কোটি টাকা ও ১০ কোটি টাকার চেক উদ্ধার করে র‌্যাব। এই টাকা ভোট কেনার জন্য বহন করা হয়েছে- এমন

অভিযোগে সেদিন তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তারা হলেন- আমদানি-রফতানি ও ঠিকাদারি কোম্পানি ইউনাইটেড কর্পোরেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলী হায়দার (২৪), আমেনা এন্টারপ্রাইজের ঝালকাঠি অফিসের ব্যবস্থাপক আলমগীর হোসেন (৩৮) এবং একই গ্রুপের জিএম

 

(অ্যাডমিন) জয়নাল আবেদীন (৪৫)। গ্রেপ্তারের দিন র‌্যাব জানায়, গ্রেপ্তার আলী হায়দারের কাছে প্রায় ৮ কোটি টাকা ও ১০ কোটি টাকার চেক পাওয়া গেছে। এই টাকার সঙ্গে ছিলো তারেক রহমানের ছবিসংবলিত মিয়া নুরুদ্দিন আহমেদ অপুর প্রচারপত্র। উল্লেখ্য, মিয়া নুরুদ্দিন আহমেদ অপু

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শরীয়তপুর-৩ (ডামুড্যা-ভেদরগঞ্জ-গোসাইরহাট) আসনে ধানের শীষ প্রতীকে লড়েন। নির্বাচনে শরীয়তপুর-৩ (ডামুড্যা-ভেদরগঞ্জ-গোসাইরহাট) আসনে মিয়া নুরুদ্দীন আহম্মেদ অপুকে বিএনপির মনোনয়ন দেয়ায় বিক্ষোভ মিছিল করেছিল ডামুড্যা উপজেলা

 

বিএনপির নেতাকর্মীরা। নির্বাচনের আগে গত ২৪ ডিসেম্বর সোমবার দুপুরের দিকে গোসাইরহাট উপজেলার কুদালপুর থেকে মিছিল করে উপজেলা সদরে যাওয়ার পথে মিয়া নুরুদ্দিন আহমেদকে কুপিয়ে জখম করেছিল দুর্বৃত্তরা। গুরুতর অবস্থায় নুরুদ্দিনকে উদ্ধার করে কুদালপুর হাসপাতালে নেয়া

 

হয়। পরে অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে হেলিকপ্টারযোগে ঢাকায় নেয়া হয়। এরপর তখন থেকেই তিনি রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মিয়া নুরুদ্দীন অপু পেয়েছেন ২ হাজার ৭৩৫ ভোট।

nayem

The author nayem

Leave a Response