close

লাইফস্টাইল

লাইফস্টাইল

যে দেশে মেয়ের বাসর রাতে উপস্থিত থাকতে হবে মেয়ের মা কে !! এ কেমন নিতি দেখুন !!

Untitled-1 copy

 

যে দেশে মেয়ের বাসর রাতে উপস্থিত থাকতে হবে মেয়ের মা কে !! এ কেমন নিতি দেখুন !!

মানুষই পৃথিবীর একমাত্র বিরলতম প্রাণী, যারা কিনা বংশবৃদ্ধির কথা না ভেবে, কেবলমাত্র আনন্দের জন্য লিপ্ত হতে পারে। কিন্তু নানা কারণে রাষ্ট্র ও সমাজ চায় মানুষের শারীরিক স্বাভাবিক আবেগের উপর নিয়ন্ত্রণ আনতে। সেই উদ্দেশ্যেই গড়ে ওঠে শারীরিক সম্পর্ক সম্পর্কিত নানা ধরনের আইন। সেইসব আইনের অনেকগুলিই অনেকবেশি উদ্ভট। এখানে রইল পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে প্রচলিত তেমনই ৫টি শারীরিক সম্পর্ক সম্পর্কিত আইন।

 

 

১. কম্বোডিয়ার কালি-তে একজন নারী কেবলমাত্র তার স্বামীর সঙ্গেই শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হতে পারেন এবং স্বামী-স্ত্রীর প্রথমমেয়ের বাসর রাতের সময়ে তাদের শয্যাকক্ষে উপস্থিত থাকেন মেয়েটির মা।তিনি গোটা বিষয়টি প্রত্যক্ষ করেন। এটাই সেই দেশের আইন।

২. ইংল্যান্ডের লিভারপুলে আঞ্চলিক মাছের দোকানে নারী মাছ বিক্রেতারা ইচ্ছে হলে সম্পূর্ণ টপলেস হয়ে মাছ বিক্রি করতে পারেন। ব্যাপারটি সেখানে বেআইনি বলে মনে করা হয় না।

৩. উরুগুয়েতে কোনও বিবাহিত মহিলা যদি কোনও পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন, এবং সেই নারীর স্বামী যদি সেই নারীকে তার প্রেমিকের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক আবস্থারত হাতে-নাতে ধরে ফেলতে পারেন তাহলে সেই নারী ও তার প্রেমিককে হত্যা করার আইনী অধিকার সেই স্বামীর রয়েছে।

৪. গু‌য়াম নামের দেশে শারীরিকভাবে কুমারী মেয়েদের বিয়ে করা আইনত নিষিদ্ধ। ফলে এই দেশে কোনও কোনও পুরুষের পেশাই হল কুমারী মেয়েদের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হয়ে তাদের কৌমার্য হরণ করা।

read more
লাইফস্টাইল

বিবাহিত জীবন কেমন হবে? বলে দিবে দেহের তিল!…..><><

Untitled-1 copy

 

বিবাহিত জীবন কেমন হবে? বলে দিবে দেহের তিল!…..><><

বিবাহিত জীবন কেমন হবে? বলে দিবে দেহের তিল!তিল প্রায় সব মানুষের দেহেই আছে। বিজ্ঞানের ভাষায় এটিকে বলা হয় মৃত কোষ। অন্যদিকে ভাগ্যগণকরা বলছেন এই তিলের দ্বারাই  নাকি বিবাহিত জীবনের ইঙ্গিত পাওয়া যায়। জেনে নিন, বিষয়টি সম্পর্কে:০১. নাকের পাশে: বিয়ের পর বিলাসবহুল জীবন। সব স্বপ্ন সফল হবে।

০২. নাকের ডগায়: যৌনজীবনে সমস্যা দাম্পত্য সম্পর্কে প্রভাব ফেলতে পারে।

০৩. ডান গালে: বিয়ের পর ভাগ্য পরিবর্তন একপ্রকার নিশ্চিত।

০৪. জোড়া ভুরুর মাঝে: বিয়ের পর এরা জীবনে অনেক বেশি সফল হয়।

০৫. হাতের ম্যারেজ লাইনে: ম্যারেজ লাইনে কালো বা লাল, দুরকম তিলই থাকতে পারে। লাল তিল বোঝায় গভীর দাম্পত্য সম্পর্ক। আর কালো তিল ঠিক উল্টোটা।

০৬. পায়ের তলায়: বিয়ের পর দেশে:বিদেশে প্রচুর ঘুরবেন।

০৭. বুকে: বুকের ডানদিকে থাকলে বিয়ের আগে অনেক লড়াই করতে হবে। কিন্তু বিয়ের পর জীবনে স্থিতাবস্থা আসবে।

০৮. ভুরুর নীচে: সম্পর্ক মসৃণ হবে না। পরিবারে ঝগড়াঝাঁটি-অশান্তি লেগেই থাকবে।

০৯. ঠোঁটের নীচে: আপনি রোম্যান্স ভালোবাসেন। আপনার জীবনে বহু সঙ্গী হবে। অনেকের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক হবে আপনার। এই কারণে জীবনে অনেক সমস্যাও তৈরি হবে।

১০. কলারবোন: স্বামী বা স্ত্রী:এর কাছ থেকে ভালোবাসা ও সমর্থন পাবেন সবকিছুতে।

১১. কোমরে: আপনার স্ত্রী বা স্বামীভাগ্য খুবই রূপবতী বা রূপবান।

১২. চোখের কোণায়: এই পুরুষ কথায় কথায় ছোটখাট ইস্যুতে স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়া করতে ওস্তাদ। আর কোনও মহিলার চোখের কোণায় তিল থাকলে? চোখের ইশারায় ফ্লার্টিং তার বায়ে হাত কা খেল।

১৩. কানের পিছনে: ভীষণ পারিবারিক একজন মানুষ।

 

 

read more
লাইফস্টাইল

মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ জান্নাতুল নাঈম এর কিছু না দেখা ২০ টি ছবি !

n copy

 

মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ জান্নাতুল নাঈম এর কিছু না দেখা ২০ টি ছবি !

মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ জান্নাতুল নাঈম এর কিছু না দেখা ছবি !

1
2
3
4

 

 

6
7
11
12
13

 

 

 

14
15
16
18

19

 

20

 

ছবি সূত্র ঃ  ইন্টারনেট

বিশ্বের সুন্দরীদের সঙ্গে লড়বেন জান্নাতুল নাঈম !

বিশ্বের সুন্দরীদের সঙ্গে একই মঞ্চে থাকবেন বাংলাদেশের মেয়ে জান্নাতুল নাঈম। এবার ‘লাভেলো মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ হয়েছেন তিনি। আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টারের নবরাত্রী হলে এই প্রতিযোগিতার গ্র্যান্ড ফিনালে অনুষ্ঠিত হয়। ১৮ নভেম্বর চীনের সানাইয়া শহরে অনুষ্ঠেয় ৬৭তম মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ থেকে অংশ নেবেন জান্নাতুল নাঈম।

‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছে অন্তর শোবিজ ও অমিকন এন্টারটেইনমেন্ট। বাংলাদেশে এবারই প্রথম ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’-এর ফ্র্যাঞ্চাইজি নিয়ে এসেছে প্রতিষ্ঠান দুটি।

গত আগস্ট থেকে শুরু হওয়া ‘লাভেলো মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতায় প্রায় ২৫ হাজার প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করেন। তাঁদের মধ্য থেকে কয়েকটি ধাঁপে বাছাই করা হয়েছে সেরা ১০ জনকে। এই ১০ জন হলেন রুকাইয়া জাহান, জান্নাতুল নাঈম, জারা মিতু, সাদিয়া ইমান, তৌহিদা তাসনিম, মিফতাহুল জান্নাত, সঞ্চিতা দত্ত, ফারহানা জামান, জান্নাতুল হিমি এবং জেসিকা ইসলাম। আজ গ্র্যান্ড ফিনালেতে অংশ নেন তাঁরা।

‘লাভেলো মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতার গ্র্যান্ড ফিনালের বিচারক ছিলেন বিবি রাসেল, জুয়েল আইচ, শম্পা রেজা, চঞ্চল মাহমুদ, রুবাবা দৌলা মতিন ও সোনিয়া কবির। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন শিনা চৌহান।

অনুষ্ঠানের একসঙ্গে গান গেয়েছেন দুই ভাই হৃদয় খান ও প্রত্যয় খান। তাঁদের সঙ্গে ছিলেন আনিকা। শীর্ষ ১০ প্রতিযোগী ক্যাটওয়াকের পাশাপাশি জনপ্রিয় গানে ঠোঁট মিলিয়েছেন ও নেচেছেন। ছিল চিত্রনায়ক নিরবের পরিবেশনা। অনুষ্ঠানটি সরাসরি সম্প্রচার করেছে এনটিভি।

মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ জান্নাতুল নাঈম এর কিছু না দেখা ২০ টি ছবি !

মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ জান্নাতুল নাঈম এর কিছু না দেখা ছবি !

1
2
3
4

 

 

6
7
8

 

 

 

14
15
16
17
18
19

 

 

20

 

ছবি সূত্র ঃ  ইন্টারনেট

বিশ্বের সুন্দরীদের সঙ্গে লড়বেন জান্নাতুল নাঈম !

বিশ্বের সুন্দরীদের সঙ্গে একই মঞ্চে থাকবেন বাংলাদেশের মেয়ে জান্নাতুল নাঈম। এবার ‘লাভেলো মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ হয়েছেন তিনি। আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টারের নবরাত্রী হলে এই প্রতিযোগিতার গ্র্যান্ড ফিনালে অনুষ্ঠিত হয়। ১৮ নভেম্বর চীনের সানাইয়া শহরে অনুষ্ঠেয় ৬৭তম মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ থেকে অংশ নেবেন জান্নাতুল নাঈম।

‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছে অন্তর শোবিজ ও অমিকন এন্টারটেইনমেন্ট। বাংলাদেশে এবারই প্রথম ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’-এর ফ্র্যাঞ্চাইজি নিয়ে এসেছে প্রতিষ্ঠান দুটি।

গত আগস্ট থেকে শুরু হওয়া ‘লাভেলো মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতায় প্রায় ২৫ হাজার প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করেন। তাঁদের মধ্য থেকে কয়েকটি ধাঁপে বাছাই করা হয়েছে সেরা ১০ জনকে। এই ১০ জন হলেন রুকাইয়া জাহান, জান্নাতুল নাঈম, জারা মিতু, সাদিয়া ইমান, তৌহিদা তাসনিম, মিফতাহুল জান্নাত, সঞ্চিতা দত্ত, ফারহানা জামান, জান্নাতুল হিমি এবং জেসিকা ইসলাম। আজ গ্র্যান্ড ফিনালেতে অংশ নেন তাঁরা।

‘লাভেলো মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতার গ্র্যান্ড ফিনালের বিচারক ছিলেন বিবি রাসেল, জুয়েল আইচ, শম্পা রেজা, চঞ্চল মাহমুদ, রুবাবা দৌলা মতিন ও সোনিয়া কবির। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন শিনা চৌহান।

অনুষ্ঠানের একসঙ্গে গান গেয়েছেন দুই ভাই হৃদয় খান ও প্রত্যয় খান। তাঁদের সঙ্গে ছিলেন আনিকা। শীর্ষ ১০ প্রতিযোগী ক্যাটওয়াকের পাশাপাশি জনপ্রিয় গানে ঠোঁট মিলিয়েছেন ও নেচেছেন। ছিল চিত্রনায়ক নিরবের পরিবেশনা। অনুষ্ঠানটি সরাসরি সম্প্রচার করেছে এনটিভি।

 

 

read more
লাইফস্টাইল

ওজন কমানোর কার্যকর চার কৌশল ……………

Untitled-1 copy

 

ওজন কমাতে অনেকেই ডায়েট ও ব্যায়াম করে থাকেন। সেগুলো অবশ্যই কার্যকর পদ্ধতি। তবে এর বাইরেও কিছু ছোট ছোট কৌশল রয়েছে যেগুলো ওজন কমাতে বেশ সাহায্য করে। ওজন কমানোর ছোট ছোট কিছু কৌশলের কথা জানিয়েছে জীবনধারা বিষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাই।

১. খাবার খাওয়ার আগে এক গ্লাস পানি পান করুন
খাবার খাওয়ার আগে পানি পান করলে পেট ভরা ভরা অনুভব হয়। এতে খাবার খাওয়ার পরিমাণ একটু কম হয়।

গবেষণা দেখা যায়, যারা তিন মাস এই নিয়ম পালন করবে তাদের ওজন অনেকটাই কমে যাবে- যারা এই নিয়ম পালন করে না তাদের তুলনায়।

২. চিবান ধীরে
যারা খুব দ্রুত খাবার খায় তাদের ওজন তাড়াতাড়ি বাড়ে। যারা ভালোভাবে চিবিয়ে খাবার খায় তাদের ওজন কমে। একটি গবেষণায় বলা হয়, খাবার খাওয়া শুরু করার ২০ মিনিট পর মস্তিষ্ক অনুভব করে পেট ভরে গেছে। তখন খাবার খাওয়ার পরিমাণ কমে যায়। আর যেহেতু ধীরে ধীরে চিবালে সময় লাগে, তাই এই সুযোগটি কাজে লাগান।

৩. টিভি দেখার সময় বা কম্পিউটারে কাজ করার সময় খাবেন না
অনেকেই টিভি দেখার সময় বা কম্পিউটারে কাজ করার সময় খেতে থাকেন। এতে বেশি খাওয়া হয়ে যায়। তাই খাওয়ার সময় ইলেকট্রনিক ডিভাইসের কাছ থেকে দূরে থাকুন। খাওয়ার সময় কেবল খান।

৪. ছোট থালা ব্যবহার করুন
খাওয়ার সময় বড় থালা ব্যবহার করলে কেবল বেশি খাওয়াই হয় না, খাবার অপচয়ও হয়। তাই খাওয়ার সময় বড় থালা ব্যবহার না করে ছোট একটি থালা ব্যবহার করুন।ছোট থালায় খেলে কম খাওয়া হবে। এতে ওজন বাড়ার আশঙ্কা কমবে।

read more
লাইফস্টাইল

পরকীয়ার সময় স্ত্রীকে হাতেনাতে ধরে নগ্ন অবস্থায় রাস্তায় ঘোরালো স্বামী (মোবাইল ফুটেজ সহ)

Untitled-1 copy

 

 

পরকীয়ার সময় স্ত্রীকে হাতেনাতে ধরে নগ্ন অবস্থায় রাস্তায় ঘোরালো স্বামী (মোবাইল ফুটেজ সহ)

পরকীয়া বর্তমান সময়ে যেন একটি সাধারণ ব্যাপারে পরিণত হয়েছে। পরকীয়ার কারণে বর্তমানে হাজার হাজার পরিবার ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে।

সম্প্রতি ইন্টারনেটে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়ে গেছে।

 

ভিডিওটি ধারণ করেছে একজন মেয়ের স্বামী। তার স্বামী তাকে পরকীয়া করার সময় হাতে নাতে ধরে ফেলে এবং নগ্ন অবস্থায় রাস্তায় বের করে ভিডিও ধারণ করে।

 

 

বিস্তারিত দেখুন ভিডিওতে

 

বিয়ের পর মেয়েরা মোটা হয়ে যায় কেন? জানলে আপনিও লজ্জা পাবেন।
স্বাস্থ্য এবং জীবনযাত্রার উপর বিয়ের ইতিবাচক প্রভাব আছে বলেই মনে করা হয়। তারপরও কেনো বিয়ের পর মুটিয়ে যায় মানুষ?

এর জন্য দায়ি তাদের দৈনন্দিন জীবনযাত্রা।

ইউরোপের নয়টি দেশ জুড়ে করা এক পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, অবিবাহিতদের তুলনায় দম্পতিরা সাধারণত স্বাস্থ্যকর খাবার বেশি খেয়ে থাকেন। তবে তাদের উল্লেখযোগ্য হারে ওজন বাড়লেও পরিশ্রমের মাত্রাও কমে।

গবেষকরা দেখেন, বিবাহিত পুরুষরা অবিবাহিতদের তুলনায় অর্গানিক এবং ন্যায্য মূল্যের খাবার বেশি কেনেন।

গবেষণার প্রধান লেখক, ইউনিভার্সিটি অফ বাসেলের হেলথ সাইকোলজি বিভাগের সহকারি অধ্যাপক ইয়ুতা মাতা বলেন, “দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্কে জড়িত পুরুষরা অনেক সচেতনতার সঙ্গে আরও স্বাস্থ্যকরভাবে খাওয়া-দাওয়া করেন।”

তবে তার মানে এই নয় যে তারা সুস্বাস্থ্যের অধিকারী।

গবেষণায় দেখা যায়, অবিবাহিতদের তুলনায় বিবাহিত পুরুষরা শারীরিক পরিশ্রম কম করেন।

গবেষকরা বৈবাহিক অবস্থা এবং বডি ম্যাস ইনডেক্স (বিএমআই) মধ্যকার সম্পর্ক পর্যবেক্ষণ করেন।

উচ্চমাত্রার বিএমআই হতে পারে দীর্ঘস্থায়ী অসুস্থতা যেমন ডায়াবেটিস বা হৃদরোগের কারণ।

গবেষকরা অস্ট্রিয়া, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, নেদারল্যান্ডস, পোল্যান্ড, রাশিয়া, স্পেন এবং ব্রিটেনের ১০ হাজার ২শ’ ২৬ জন উত্তরদাতার তথ্য ‘ক্রস-সেকশনাল’ পদ্ধতিতে পর্যালোচনা করেন।

 

নয়টি দেশের ফলাফলেই দেখা যায়, দম্পতিদের বিএমআই’য়ের মাত্রা অবিবাহিতদের তুলনায় বেশি, নারী-পুরুষ উভয়েরই।

বার্লিনের ম্যাক্স প্লাঙ্ক ইন্সিটিটিউট ফর হিউম্যান ডেভেলপমেন্টের রাল্ফ হার্টউইগ বলেন, “সামাজিক বিষয়গুলো স্বাস্থ্যের উপর প্রভাব ফেলতে পারে। আর বিয়ে এবং আনুষঙ্গিক পরিবর্তনগুলো শারীরিক পুষ্টি এবং ওজনের সঙ্গে সরাসরি সম্পর্কযুক্ত।”

বিবাহিত দম্পতিদের পাশাপাশি অবিবাহিত দম্পতিদের নিয়েও বাড়তি গবেষণা করেছেন গবেষকরা।

দম্পতিদের কাছ থেকে জানা গেছে তারা টিনজাত বা প্যাকেট করা খাবারের চাইতে আঞ্চলিক ও অপ্রক্রিয়াজাত খাবার বেশি কেনেন।

মাতা বলেন, “বাস্তবে দম্পতিরা সবক্ষেত্রে ততটা স্বাস্থ্যকর জীবনযাপন করেন না, যতটা মনে করা হয়, এমনটাই ইঙ্গিত করে এই গবেষণার ফলাফল।”

সোশাল সায়েন্স অ্যান্ড মেডিসিন জার্নালে এই গবেষণা প্রকাশিত হয়।

read more
লাইফস্টাইল

মিমিই নুসরাতের বোন…..

n copy

 

মিমিই নুসরাতের বোন…..><><

মিমিই নুসরাতের বোন!টালিপাড়ায় হইচই! কারণ, দুই সুন্দরী তারকা মিমি-নুসরাত একই মায়ের পেটের দুই সন্তান না হলেও তারা দুই বোন! তবে কি? আর এই দুই বোনকে নিয়েই এখন হই হই রই কাণ্ড কলকাতার টালিগঞ্জে৷ হ্যাঁ! এক্কেবারে চমকে দেওয়ার মতোই ঘটনা বটে৷আর তাদের বোন হওয়ার কথাটা ফাঁস করেছেন নুসরাত জাহান৷ এখনও বেশ খটকা লাগছে তো? আসলে এর পেছনে আছে অন্য এক ঘটনা? কী সেই চাঞ্চল্যকর কথা? সম্প্রতি এক সোস্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে এই রহস্য খোলসা করেছেন নুসরাত৷ তিনি লিখেছেন, কিছুদিন আগে তার বয়ফ্রেন্ড কাদের খানের সঙ্গে বেশ সমস্যা চলছিল৷ এতটাই ঝামেলায় জড়িয়ে পড়েছিলেন, কোনো বন্ধুকেই তিনি কাছে পাননি৷

তবে ভগবানের মতো উদয় হয়ে নুসরাতের দুর্দিনে পাশে দাঁড়িয়েছিলেন টালিউডের অন্য এক জনপ্রিয় অভিনেত্রী মিমি৷ এ রূপালি পর্দার শিল্পজগতে নুসরাতের অতি ঘনিষ্ঠ বন্ধু একমাত্র মিমি৷ তাই সেই দুর্দিনে পাশে দাঁড়ানোর জন্য মিমিকে বোন হিসেবেই সবার সামনে তুলে ধরেছেন বাংলা সিনেমার অন্যতম ‘আইটেম’ গার্ল নুসরাত৷ অন্যদিকে মিমিও জানিয়েছেন, তার সঙ্গে অভিনেতা রাজের ব্রেকআপ হওয়ার পর তিনি খুব ভেঙে পড়েছিলেন৷ তার সেই সময়কার নানা সমস্যার প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত পাশে পেয়েছেন নুসরাতকে৷

টালিপাড়া এবং এ ইন্ড্রাস্ট্রির সঙ্গে যারা যুক্ত, তারা ভালো করেই জানেন এ দুই তারকার বন্ধুত্বের কথা৷ শুটিং এবং কাজের অবসরে তারা একসঙ্গেই কাটান৷ একসঙ্গে শপিং করা, আড্ডা দেওয়া, খাওয়া-দাওয়া একে অন্যকে ছাড়া করে না৷ তাদের বন্ধুত্ব এক্কেবারে দুই বোনের মতোই৷ ইতোমধ্যে তারা একসঙ্গে দু’টি ছবিও করেছেন৷ আগামীতে আরো ছবি করার ইচ্ছে আছে বলেও তারা জানিয়েছেন৷

read more
লাইফস্টাইল

প্রবাসী স্বামী, স্ত্রীকে ছেড়ে ৬ মাসের বেশি বাইরে থাকলে স্ত্রী কি তালাক হয়ে যাবে ?

Untitled-1 copy

 

প্রবাসী স্বামী, স্ত্রীকে ছেড়ে ৬ মাসের বেশি বাইরে থাকলে স্ত্রী কি তালাক হয়ে যাবে ?

শুনেছি স্বামী স্ত্রীকে ছেড়ে ছয় মাসের বেশি বাইরে থাকলে স্ত্রী তালাক হয়ে যায়। তাহলে যারা স্ত্রী ছেড়ে দুই তিন বছর করে বিদেশে থাকছে, তাদের কি হবে?

উত্তরঃ-উক্ত শোনা কথা ঠিক নয়। স্ত্রী রাজি থাকলে উপার্জনের উদ্দেশ্যে দুই তিন বছর থাকা কোন দোষের নয়। যে যতদিন থাকে, সে তো বাধ্য হয়েই থাকে। বিশেষ কারণে দ্বিতীয় খলীফা উমার (রাঃ) স্বামী স্ত্রীর সাক্ষাতের জন্য ছয় মাস সময় বেঁধে দিয়েছিলেন। কিন্তু তার মানে এই নয় যে, তার বেশি পৃথক থাকলে স্বামী স্ত্রীর বন্ধন আপনা আপনিই ছিন্ন হয়ে যাবে। (ইবনে জিবরিন)
গ্রন্থঃ দ্বীনী প্রশ্নোত্তর,লেখক/সংকলকঃ আবদুল হামীদ ফাইযী

কেন পরকীয়ায় মেতে উঠেন মহিলারা? গবেষণায় বেরিয়ে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য !!

পুরুষেরই নাকি বেশি ‘ছুকছুকানি’ স্বভাব। শারীরিক যে কোন বিষয় নিয়ে তাদের আগ্রহই সবচেয়ে বেশি থাকে। নারী মন নিখাদ প্রেম চায়, আর পুরুষ চায় শরীর। সমাজের এই প্রচলিত ধারণাকেই পালটে দিল সাম্প্রতিক এক সমীক্ষা।

যাতে উঠে এলো সম্পূর্ণ উলটো তথ্য। ভাউচার কোডস প্রো নামে এক মার্কিন গবেষণা সংস্থার মতে, পুরুষদের তুলনায় নারীরাই বেশি শরীর আগ্রহী। বেসরকারি এই গবেষণা সংস্থার পক্ষ থেকে বেশ কয়েকজন পুরষ ও নারীকে শারীরিক ইচ্ছা নিয়ে প্রশ্ন করা হয়েছিল। বেশ কয়েকদিন ধরে তাদের ব্যবহারও খুঁটিয়ে দেখা হয়।

দেখা গিয়েছে, মহিলাদের মধ্যে শতকরা ৫৯ শতাংশেরই শারীরিক চাহিদা সঙ্গীর তুলনায় বেশি। যেখানে মাত্র ৪১ শতাংশ পুরুষদেরই বাড়তি শারীরিক চাহিদা রয়েছে। এখানেই শেষ নয়। জানা গিয়েছে, শরীরের অতৃপ্ত চাহিদা পূরণ না হওয়াই অনেক দম্পতির মধ্যে কলহের অন্যতম কারণ।

গবেষকদের দাবি, প্রতি পাঁচ দম্পতির মধ্যে এক যুগলের মধ্যে এ কারণেই ঝামেলার সূত্রপাত হয়। যা পরবর্তীকালে বড় আকার নেয়। কেউ হীনমন্যতায় ভোগেন, কেউ মানসিক অবসাদের শিকার হন, কেউ আবার শারীরিক চাহিদা মেটাতে পরকীয়ায় মজে যান।

জানা গিয়েছে, যে সমস্ত নারী ও পুরষ স্বীকার করেছেন তারা সঙ্গীর থেকে বাড়তি সুখ চান, তাদের মধ্যে শতকরা সাত শতাংশই পরকীয়ায় লিপ্ত। আবার এদের মধ্যে অনেকে শরীরের চাহিদা মেটাতে (প্রকাশ অযোগ্য শব্দ) ব্যবহার করে থাকেন। আর শরীর নিয়ে এমন তথ্য তারা প্রকাশ্যেই স্বীকার করেছেন।

আর এও জানিয়েছেন, শারীরিক সম্পর্ক নিয়ে সমাজের প্রচলিত ছুৎমার্গ এবার সত্যিই ভাঙা প্রয়োজন। যাতে মানুষ এই বিষয়টিকেও সমান গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করতে পারে। এবং একটা আশু সমাধানের পথ খুঁজে নেয়।

read more
লাইফস্টাইল

প্রবাসী স্বামী, স্ত্রীকে ছেড়ে ৬ মাসের বেশি বাইরে থাকলে স্ত্রী কি তালাক হয়ে যাবে ?

Untitled-1 copy

 

প্রবাসী স্বামী, স্ত্রীকে ছেড়ে ৬ মাসের বেশি বাইরে থাকলে স্ত্রী কি তালাক হয়ে যাবে ?

শুনেছি স্বামী স্ত্রীকে ছেড়ে ছয় মাসের বেশি বাইরে থাকলে স্ত্রী তালাক হয়ে যায়। তাহলে যারা স্ত্রী ছেড়ে দুই তিন বছর করে বিদেশে থাকছে, তাদের কি হবে?

উত্তরঃ-উক্ত শোনা কথা ঠিক নয়। স্ত্রী রাজি থাকলে উপার্জনের উদ্দেশ্যে দুই তিন বছর থাকা কোন দোষের নয়। যে যতদিন থাকে, সে তো বাধ্য হয়েই থাকে। বিশেষ কারণে দ্বিতীয় খলীফা উমার (রাঃ) স্বামী স্ত্রীর সাক্ষাতের জন্য ছয় মাস সময় বেঁধে দিয়েছিলেন। কিন্তু তার মানে এই নয় যে, তার বেশি পৃথক থাকলে স্বামী স্ত্রীর বন্ধন আপনা আপনিই ছিন্ন হয়ে যাবে। (ইবনে জিবরিন)
গ্রন্থঃ দ্বীনী প্রশ্নোত্তর,লেখক/সংকলকঃ আবদুল হামীদ ফাইযী

কেন পরকীয়ায় মেতে উঠেন মহিলারা? গবেষণায় বেরিয়ে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য !!

পুরুষেরই নাকি বেশি ‘ছুকছুকানি’ স্বভাব। শারীরিক যে কোন বিষয় নিয়ে তাদের আগ্রহই সবচেয়ে বেশি থাকে। নারী মন নিখাদ প্রেম চায়, আর পুরুষ চায় শরীর। সমাজের এই প্রচলিত ধারণাকেই পালটে দিল সাম্প্রতিক এক সমীক্ষা।

যাতে উঠে এলো সম্পূর্ণ উলটো তথ্য। ভাউচার কোডস প্রো নামে এক মার্কিন গবেষণা সংস্থার মতে, পুরুষদের তুলনায় নারীরাই বেশি শরীর আগ্রহী। বেসরকারি এই গবেষণা সংস্থার পক্ষ থেকে বেশ কয়েকজন পুরষ ও নারীকে শারীরিক ইচ্ছা নিয়ে প্রশ্ন করা হয়েছিল। বেশ কয়েকদিন ধরে তাদের ব্যবহারও খুঁটিয়ে দেখা হয়।

দেখা গিয়েছে, মহিলাদের মধ্যে শতকরা ৫৯ শতাংশেরই শারীরিক চাহিদা সঙ্গীর তুলনায় বেশি। যেখানে মাত্র ৪১ শতাংশ পুরুষদেরই বাড়তি শারীরিক চাহিদা রয়েছে। এখানেই শেষ নয়। জানা গিয়েছে, শরীরের অতৃপ্ত চাহিদা পূরণ না হওয়াই অনেক দম্পতির মধ্যে কলহের অন্যতম কারণ।

গবেষকদের দাবি, প্রতি পাঁচ দম্পতির মধ্যে এক যুগলের মধ্যে এ কারণেই ঝামেলার সূত্রপাত হয়। যা পরবর্তীকালে বড় আকার নেয়। কেউ হীনমন্যতায় ভোগেন, কেউ মানসিক অবসাদের শিকার হন, কেউ আবার শারীরিক চাহিদা মেটাতে পরকীয়ায় মজে যান।

জানা গিয়েছে, যে সমস্ত নারী ও পুরষ স্বীকার করেছেন তারা সঙ্গীর থেকে বাড়তি সুখ চান, তাদের মধ্যে শতকরা সাত শতাংশই পরকীয়ায় লিপ্ত। আবার এদের মধ্যে অনেকে শরীরের চাহিদা মেটাতে (প্রকাশ অযোগ্য শব্দ) ব্যবহার করে থাকেন। আর শরীর নিয়ে এমন তথ্য তারা প্রকাশ্যেই স্বীকার করেছেন।

আর এও জানিয়েছেন, শারীরিক সম্পর্ক নিয়ে সমাজের প্রচলিত ছুৎমার্গ এবার সত্যিই ভাঙা প্রয়োজন। যাতে মানুষ এই বিষয়টিকেও সমান গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করতে পারে। এবং একটা আশু সমাধানের পথ খুঁজে নেয়।

read more
লাইফস্টাইল

বিয়ের পরে বেশির ভাগ বাঙালি মেয়ে কেন মোটা হয়ে যান?

Untitled-1 copy

 

বাঙালী মেয়েদের দেখা যা বিয়ের ৬ মাসের মধ্যেই কেমন একটা ‘বউ বউ’ চেহারা প্রাপ্ত হয়। সরলভাবে বললে, খানিকটা মুটিয়ে যায়। মা-কাকিমারা স্নেহের নজরে বলে থাকেন, স্বাস্থ্য ফিরেছে। কিন্তু এমনটা হয় কেন? ঠিক কী কারণে বেশিরভাগ বাঙালি মেয়ের চেহারা বদলে যায় বিয়ের পরে?

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, এই চেহারা বদলের পিছনে কিছু শারীরবৃত্তীয় কারণ যেমন রয়েছে, তেমনই রয়েছে বেশ কিছু মনস্তাত্ত্বিক পরিবর্তনও। দেখা যাক তার কয়েকটিকে।

• বিযের পরবর্তীতে অধিক ঘুম মেদবৃদ্ধির অন্যতম কারণ।

• একটা বড় সংখ্যক বাঙালি মেয়ে বিয়ের পরে দিবানিদ্রাসক্ত হয়ে পড়ে। সেটা মেদবৃদ্ধির অন্যতম কারণ।

• অনেক বাঙালি মেয়েই বিয়ের আগে নাচ অথবা সাইকেল চালানোর মতো কিছু ব্যায়ামে অভ্যস্ত থাকেন। বিয়ের পরে সেসব ছেড়ে দিলে পৃথুলতা আসে।

• বিয়ের পরে এক ধরনের নিরাপত্তাবোধ জন্ম নেয়। বিবাহ-পূর্ববর্তী জীবনের অনেক উদ্বেগের নিরসন ঘটে। এর কারণে শারীরিক পরিবর্তন ঘটতেই পারে।

• বিয়ের পরে বেশ খানিকটা স্বাধীনতা পেয়ে অনেক বাঙালি ময়েই যা খুশি খেতে শুরু করেন। বাবা-মায়ের চোখরাঙানিতে যা তাঁরা বিয়ের আগে খেতে পারতেন না, সেই সব জাঙ্ক-খাবার বিপুল পরিমাণে খেয়ে মুটিয়ে ফেলেন নিজেকে।-এবেলা

read more
লাইফস্টাইল

প্রেমিকা রেখে প্রেমিক উধাও: কয়েকজন মিলে হোটেলে নিয়ে ধর্ষণ………

Untitled-1 copy

 

প্রেমিকের বিয়ের আশ্বাসে আসা এক কিশোরীকে রাজধানীর মিরপুরে রাস্তার পাশ থেকে রক্তাক্ত এক কিশোরীকে (১৬) উদ্ধার করেছেন স্থানীয়রা। এমনকি কয়েকজন যুবক একটি আবাসিক হোটেলে নিয়ে ধর্ষণ করার পর তাকে সেখানে ফেলে রেখে যায়। বর্তমান ওই কিশোরী ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

মেয়েটির বাড়ি টাঙ্গাইলে। শুক্রবার রাত সাড়ে আটটার দিকে মিরপুর ১০ নম্বরের শাহ আলী কমপ্লেক্সের নিচ থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। পুলিশ বলছে, পুরো বিষয়টি তারা পর্যবেক্ষণ করছে।

সাজ্জাদ হোসেন নামের একজন নিরাপত্তারক্ষী সূত্রে জানাগেছে, মেয়েটি একটি বেঞ্চের নিচে পড়ে ছিল। লোকজন তাকে ঘিরে রেখেছিল। কাছে গিয়ে দেখতে পান সে রক্তাক্ত। এরপর তিনি তাঁর স্ত্রীকে ডেকে আনেন। প্রথমে তাকে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসা না দিলে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানেও চিকিৎসা না দিলে পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়।

শাহ আলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, মেয়েটিকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর তাঁরা বিষয়টি জানতে পেরেছেন। থানার এক পুলিশ সদস্য হাসপাতালে আছেন। প্রাথমিকভাবে মেয়েটি জানিয়েছে, এক ছেলের সঙ্গে তার সম্পর্ক ছিল। বিয়ে করার কথা বলে তাকে বাড়ি থেকে নিয়ে আসে সে। এরপর বাড্ডা এলাকায় একটা জায়গায় বসতে বলে সে চলে যায়। আর ফিরে আসেনি। তার সঙ্গে থাকা টাকা ও স্বর্ণও সে নিয়ে যায়। এরপর এক ছেলে এসে গাজীপুরে তার এক দূর সম্পর্কের দুলাভাইয়ের কাছে পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে তাকে কোনো একটি হোটেলে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে ধর্ষণ করা হয় বলে জানিয়েছে সে।

ওসি বলেন, মেয়েটি অসুস্থ হওয়ায় ঠিকমতো কথাই বলতে পারছে না। সুস্থ হওয়ার পর তার সঙ্গে বিস্তারিত কথা বলা হবে। এরপর কী করা যায়, সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

বিডি২৪লাইভ/এএস

read more
1 2 3 5
Page 1 of 5