close

ক্রিকেট

ক্রিকেট

আশরাফুলকে দলে ফিরতে যে তিন শর্ত বেধে দিলেন বিসিবি

Untitled-3 copy

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) ম্যাচ পাতানোয় জড়িয়ে আট বছরের নিষেধাজ্ঞার শাস্তি পান আশরাফুল। এই শাস্তির বিরুদ্ধে আপিল করেছিলেন তিনি। তাতে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ কমে দাঁড়ায় পাঁচ বছরে। এর মধ্যে দুই বছর স্থগিত নিষেধাজ্ঞা হওয়ায় শাস্তিটা আসলে তিন বছরের।২০১৩ সালের ১৩ আগস্ট শুরু হয়েছে এই শাস্তি, যার মেয়াদ শেষ হবে আগামী ১৩ আগস্ট। এরপরই প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে ফিরতে পারবেন টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেকে সবচেয়ে কম বয়সে সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়া বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল। তিনি বলেছেন, সুস্থ থাকলে তিনি আরো ১০ থেকে ১৫ বছর বাংলাদেশ ক্রিকেটে খেলতে পারবেন।

 

 

তিনি বলেন, আমি নিষেধাজ্ঞা মুক্ত হয়ে আগামী আগস্ট মাস থেকে আবারও আপনাদের সামনে হাজির হব। আশা করি আগামীতে ক্রিকেটে ফিরে সুস্থ ও সুন্দরভাবে আমার ক্রিকেট লাইফ শেষ করতে পারব। ভক্তদের ভালোবাসার মাধ্যমে আরো সুন্দর সুন্দর ইনিংস উপহার দেব।’জাতীয় ক্রিকেট দল সম্পর্কে আশরাফুল বলেন, বিশ্বের কাছে ক্রিকেট এখন একটি জনপ্রিয় খেলা। আর এই ক্রিকেটের মাধ্যমেই সারা বিশ্বের কাছে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা টাইগার হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে।

 

 

হতাশা, আক্ষেপ, কষ্ট আর অপেক্ষার দিন ফুরোতে খুব বেশী বাকি নেই বাংলাদেশের ক্রিকেটের প্রথম সুপারস্টার মোহাম্মদ আশরাফুলের। যার ব্যাটের ঝলকে, কার্ডিফে প্রতাপি পন্টিংয়ের দাপুটে অস্ট্রেলিয়াকে হারানোর গৌরব গাথা রচিত, ২০০৭ ওয়েস্ট ইন্ডিজ বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকা জয়সহ যিনি এক সময় একা হাতে হাসিয়েছেন টাইগার ভক্তদের, সেই আশরাফুলের শরীর থেকে কলঙ্কের দাগ মুছে যাবে আর মাত্র কয়েকটা মাস পরই।

মাশরাফি মোটিভেটর ক্যাপ্টেন হিসেবে দেশ ছাপিয়ে বিশ্ব সেরাদের তালিকায় ঢুকে যেতে পারেন, সাকিবের ভক্তকুল কোটি হতে পারে, তামিম, মাহমদুল্লাহ কিংবা হালের মুস্তাফিজের অগনিত শুভাকাঙ্খি থাকতে পারে। তবে আশরাফুলকে ফিরে পেতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আবার বাংলাদেশের জার্সিতে দেখতে চাওয়া ক্রিকেট ভক্তের সংখ্যা কপাল কুচকে দেবার মতো।

 

 

 

একটা জরিপে দেখা গেছে- রেডিওতে খেলা নিয়ে যে শো হয়, তাতে দর্শকদের করা একশো প্রশ্নের ৬০টিই থাকে আশরাফুল কবে ফিরবেন সেটি নিয়ে। নতুন খবর হলো, আশরাফুল পাপনের কাছে জাতীয় দলের হয়ে খেলার ইচ্ছা পোষণ করলে তিনি আশরাফুলকে তিনটি শর্ত জড়িয়ে দেন।

শর্তগুলো এক নজরে দেখে নিন-

১. ঘোরোয়া ক্রিকেটে আগামী দুই বছরে ৭টি সেঞ্চুরিসহ অন্তত মোট ৩ হাজার রান করতে হবে।

২. টেস্টের বিষয় মাথায় রেখে তাকে ভাল পারফর্ম করতে হবে।

৩. দলের সব সিনিয়র ক্রিকেটারদের মতামত তার পক্ষে থাকতে হবে।

২০০১ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেকেই হৈ চৈ ফেলে দিয়েছিলেন মোহাম্মদ আশরাফুল। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে কলম্বোতে অভিষেক টেস্টে সবচেয়ে কম বয়সে শতকের রেকর্ড গড়েছিলেন তিনি। ৬১ টেস্ট খেলে আশরাফুলের সংগ্রহ ২৭৩৭ রান। এর মধ্যে রয়েছে ছয়টি শতক ও আটটি অর্ধশতক। আর ১৭৭টি ওয়ানডে ম্যাচে তাঁর রান ৩৪৬৮। এর মধ্যে রয়েছে তিনটি শতক ও ২০টি অর্ধশতক।

read more